বাংলাদেশের এক-তৃতীয়াংশ রপ্তানী আয়ের প্রধান উৎস হবে পর্যটন শিল্প

0
1132
  |  মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯ |  ১২:৪৬পূর্বাহ্ণ

সীতাকুণ্ড প্রজেক্ট শেয়ারিং মিটিংয়ে প্রোভাইডাররা বলেছেন, বিশ্বের উন্নয়নশীল দেশসমূহের মত বাংলাদেশের এক-তৃতীয়াংশ রপ্তানী আয়ের প্রধান উৎস হবে পর্যটন শিল্প। বাংলাদেশের পর্যটন অঞ্চলগুলো বিরাট সম্ভাবনাময় হলেও অবকাঠামোগত উন্নয়ন, বিনোদনের পর্যাপ্ত সুযোগ, পর্যটন আকর্ষণের বহুমাত্রিকতা, নিরাপত্তা ও পর্যটন খাতে বিনিয়োগের অভাবে অঞ্চলগুলোকে এই খাতে তেমন কাজে লাগানো যাচ্ছে না। অথচ চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড ও মিরসরাই পাহাড়, সমুদ্র, ছড়া/ঝর্ণা,জলাধার/ লেক, উদ্যান, উপকূলীয় বনভূমি ও সমুদ্র সৈকত দ্বারা ঘেরা অনন্য দুটি উপজেলা।
সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত প্রজেক্ট শেয়ারিং মিটিংয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিল্টন রায়ের সভাপতিত্বে প্রোভাইডারগণ উপোরোক্ত কথাগুলো বলেন।
প্রজেক শেয়ারিং মিটিংয়ে ট্যুরিস্ট গাইড, ফটোগ্রাফার, হোম স্টে সার্ভিস, বোট রাইডার সার্ভিস ও বিউটি পার্লার সার্ভিসসহ স্থানীয় উদ্যোগে বিভিন্ন সার্ভিসের প্রোভাইডারগণ উপস্থিত থেকে তাদের বিভিন্ন পরিকল্পনার বিষয় তুলে ধরেন ।
‘‘চট্টগ্রামের মিরসরাই ও সীতাকুণ্ডে ইকো-ট্যুরিজম শিল্পের উন্নয়ন’’ শীর্ষক ভ্যালু চেইন উন্নয়ন প্রকল্পের ফোকাল পার্সন জিমি রায়ের সঞ্চালনায় মিটিংয়ে অংশ নেন ১ নং সৈয়দপুর ইউপি চেয়ারম্যান তাজুল ইসলাম নিজামী, কুমিরা ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মোর্শেদ চৌধুরী, মুরাদপুর ইউপি চেয়ারম্যান জাহেদ আনোয়ার চৌধুরী, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ শাহআলম, দৈনিক সমকালের সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি ও সীতাকুণ্ড প্রেস ক্লাবের সভাপতি এম সেকান্দর হোসাইন, দৈনিক পূর্বকোণ/ দৈনিক কালের কণ্ঠের সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি ও প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৌমিত্র চক্রবর্তী।

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here