‘মীরাক্কেলের’ মীরের আত্মহত্যার চেষ্টা

0
1041
  |  শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯ |  ৫:০১অপরাহ্ণ

কলকাতার জনপ্রিয় উপস্থাপক মীর আফসার আলি। যার কথায় লাখো ভক্তের মাঝে হাসির রোল পড়ে যায়, সে কিনা আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন। তাও একবার দুইবার নয়, চার চার বার তিনি আত্মহত্যা করার চেষ্টা করেছিলেন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে এ কথা জানান জনপ্রিয় কমেডি শো ‘মীরাক্কেলে’ এর উপস্থাপক মীর।

মীর বলেন, ‘গত দু’বছরে আমি চারবার সুইসাইড অ্যাটেম্পট করেছি। চারবারের মধ্যে তিনবার আমাকে আনোয়ার শাহ রোডের হসপিটালে ভর্তি করা হয়েছিল। একবার তো আমি নিজের বাড়িতে সুইসাইড অ্যাটেম্পট করতে গিয়েছিলাম।’

একবার আত্মহত্যা করতে ৮৭টি ঘুমের ওষুধ খেয়েছিলেন এ কমেডিয়ান। সেই অভিজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘ লাস্টবার হোয়েন আই অ্যাটেম্পটেড সুইসাইড, আমি ৮৭টা স্লিপিং পিল খেয়ে ফেলেছিলাম। একটা স্লিপিং পিলও মুখে দেওয়ার সময় আমার কারও কথা মনে হয়নি। একবারও মনে হয়নি আমি কোনো ভুল কাজ করেছি। তারপর আমাকে হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হয়। ডাক্তারদের আপ্রাণ চেষ্টায় মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে আসি। ইট ওয়াজ অলমোস্ট ফ্যাটাল। আই জাস্ট স্ন্যাপ্‌ড আউট। সেবার আমার মনে হয়েছিল আমি বোধহয় আর ফিরব না। তারপর কাউন্সিলিং হয়েছিল, ওষুধপত্র স্টার্ট হলো। আমাকে বাড়ির লোক আমেরিকা পাঠিয়ে দিয়েছিল ছুটিতে।’

এত তারখ্যাতি, অর্থ-বিত্ত থাকতে কেন আত্মহত্যা করতে গিয়েছিলেন- এমন প্রশ্নে মীর বলেন, ‘সবকিছু রয়েছে আমার। আল্লাহ সবকিছু দিয়েছেন। আমি যা যা কিছু স্বপ্নেও ভাবতে পারিনি সে সব কিছু আমার দখলে রয়েছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও কিছু একটার পেছনে ছুটতে থাকা, কিছু একটা তাগিদ, কোনো একটা জেদের বশে করেছি এই কাজ।’

আত্মহত্যা করতে নিষেধ করে মীর বলেন, ‘এরকম সুইসাইডের চিন্তা যদি কখনও মাথায় আসে, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে কাছের কোনো মানুষকে বলে ফেলুন। পাশে কেউ না থাকলে তাকে ফোন করে কথাটা বলুন। সেই মানুষটির সঙ্গেই কথা বলবেন যিনি আপনাকে অপমান করবেন না। যারা ডাক্তার বা মনোবিদের সাহায্য নিচ্ছেন, তাদের পায়ে পড়ে বলছি, কিছু লুকোবেন না ডাক্তারের কাছে।’

উত্তর দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here